ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান হেড টু হেড~France vs England head to head

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান হেড টু হেড কোন দল কতটা সাফল্য অর্জন করেছে। কোন দলের জয়ের পাল্লা ভারী সকল হেড টু হেড পরিসংখ্যান দেখে নিন একনজরে।

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান হেড টু হেড~France vs England head to head
ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান
মোট ম্যাচ৩১
ইংল্যান্ডের জয়১৭
ফ্রান্সের জয়০৯
ইংল্যান্ডের জয় %৫৪.৮৩%
ফ্রান্সের জয় % ২৯.০৩%
ড্রা / ফলাফল হয়নি০৫
ড্রা / ফলাফল হয়নি %১৬.১২%
প্রথম খেলেছিল১০ই মে ১৯২৩
সর্বশেষ খেলেছিল১৩ই জুন ২০১৭

 

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান হেড টু হেড

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড হেড টু হেড পরিসংখ্যানে মোট ম্যাচ খেলেছে ৩১টা। যেখানে ইংল্যান্ড জয় পেয়েছে ১৭টা ম্যাচে। ইংল্যান্ডের জয়ের পরিমাণ ৫৪.৮৩%। অন্যদিকে ফ্রান্স জয় পেয়েছে ০৯টা ম্যাচে। ফ্রান্সেরে জয়ের পরিমাণ ২৯.০৩%ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যানে হেড টু হেড ৩১টা ম্যাচের মধ্যে ০৫টা ম্যাচে ড্রা হয়েছে। ড্রার পরিমাণ ১৬.১২%।

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড হেড টু হেড পরিসংখ্যানে প্রথম আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলেছে ১০ই মে ১৯২৩ সালে। প্রথম ম্যাচেই ৪-১ গোল ব্যাবধানে ইংল্যান্ড জয় পায়। ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যানে সর্বশেষ হেড টু হেড ম্যাচ খেলেছে আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ। যেখানে ২-৩ গোল ব্যাবধানে ফ্রান্স জয়লাভ করেছে। দুই দলের মধ্যকার সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচে ফ্রান্স জয়লাভ করে ৩টা ম্যাচে এবং ইংল্যান্ড জয়লাভ করে ১টা ম্যাচে বাকী একটা ম্যাচে ড্রা হয়।

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড পরিসংখ্যান

সালম্যাচজয়ী দলস্কোরপ্রতিযোগিতা
১০মে, ১৯২৩ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড১-৪আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৭মে, ১৯২৪ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৩-১আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
২১মে, ১৯২৫ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড২-৩আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
২৬মে, ১৯২৭ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৬-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৭মে, ১৯২৮ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড১-৫আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০৯মে, ১৯২৯ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৪-১আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৪মে, ১৯৩১ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডফ্রান্স৫-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
৬ডিসেম্বার, ১৯৩৩ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৪-১আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
২৬মে, ১৯৩৮ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড২-৪আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০৩মে, ১৯৪৭ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৩-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
২২মে, ১৯৪৯ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড১-৩আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০৩অক্টোবার, ১৯৫১ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সড্রা২-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৫মে, ১৯৫৫ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডফ্রান্স১-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
২৭নভেম্বার, ১৯৫৭ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৪-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০৩অক্টোবার, ১৯৬২ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডড্র১-১উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
২৭ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৩ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স২-৫উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
২০জুলাই, ১৯৬৬ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড০-২ফিফা বিশ্বকাপ
১২মার্চ, ১৯৬৯ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সইংল্যান্ড৫-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৬জুন, ১৯৮২ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড১-৩ফিফা বিশ্বকাপ
২৯ফেব্রুয়ারি, ১৯৮৪ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স০-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০৯ফেব্রুয়ারি, ১৯৯২ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড০-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৪জুন, ১৯৯২ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সড্রা০-০উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
০৭জুন, ১৯৯৭ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড০-১টুর দে ফ্রান্স
১০ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৯ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স০-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
০২সেপ্টেম্বার, ২০০০ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডড্রা১-১আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৩জুন, ১৯০৪ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স১-২উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
২৬মার্চ, ১৯০৮ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডফ্রান্স১-০আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৭নভেম্বার, ২০১০ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স১-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১১জুন, ২০১২ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডড্রা১-১উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ
১৭নভেেম্বার, ২০১৫ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডইংল্যান্ড০-২আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১৩জুন, ২০১৭ইংল্যান্ড বনাম ফ্রান্সফ্রান্স২-৩আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচ
১১নভেম্বার, ২০২২ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ডফ্রান্স২-১ফিফা বিশ্বকাপ

 

ফুটবলে ফ্রান্সের পরিসংখ্যান

বর্তমান সমায়ে ইউরোপের ফুটবলের সবচেয়ে আলোচিত দলটি হল ফ্রান্স। ৯০ দশকের জিনেদিন জিদানের হাত ধরে প্রথম বিশ্বকাপের স্বাদ পায় ফ্রান্স। তার পর থেকে ইউরোপের নিজেদের ফুটবল শক্তি প্রদর্শন করতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমান সমায়ের সবচেয়ে আলোচিত নাম কিলিয়ান এমবাপ্পে। ফ্রান্স সর্বপ্রথম ইন্টারন্যাশনাল ম্যাচ খেলে পহেলা মে ১৯০৪ সালে। প্রথম ম্যাচেই প্রতিপক্ষ বেলজিয়ামকে ৩-৩ গোলে রুখে দেয়।

ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় জয় ২৬শে জুন, ১৯১৯ সালে গ্রীসের বিপক্ষে ১০-০ গোল ব্যাবধানে বিশাল জয় পায়। অন্যদিকে ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় পরাজয় ২২শে অক্টবার ১৯০৮ সালে ডেনমার্কের বিপক্ষে ১-১৭ গোল ব্যাবধানে লজ্জার রেকর্ড করে।

ফুটবল পরিসংখ্যানে ফ্রান্সের যত অর্জন

ফ্রান্স সর্বপ্রথম বিশ্বকাপের মূল আসরে অংশগ্রহণ করে ১৯৩০ সালে। সর্বমোট ১৬বার বিশ্বকাপ খেলে সর্বোচ্চ  সাফল্য ১৯৯৮ এবং ২০১৮ সালে চ্যাম্পিয়ান হওয়ার গৌরব অর্জন করে। ফ্রান্স বিশ্বকাপে মোট ম্যাচ খেলেছে ১১৯টি যেখানে জয়লাভ করেছে ৭০টি। ম্যাচে জয়ের পরিমাণ ৫৮.৮২%। ড্রা হয়েছে ২৬টি ম্যাচেড্রার পরিমাণ ২১.৮৪%। ১১৯টি ম্যাচের মধ্যে পরাজয় মাত্র ২৩টি ম্যাচেপরাজয়ের পরিমাণ ১৯.৩২%। বিশ্বকাপে আসরে ফ্রান্স সর্বমোট গোল করেছে ২৩৪টি বিপরীতে গোল হজম করেছে মাত্র ৯১টি

ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে ফ্রান্স তাদের শক্তির জানান দিয়েছে ষাটের দশক থেকে। ফ্রান্স ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করে ১০বার যেখান থেকে ১৯৮৪ ও ২০০০ সালে ২বার শিরোপা ঘরে তোলে।

তাছাড়া ফ্রান্স নেশনস লিগে অংশগ্রহণ করে প্রথম আসরেই ২০২১ সালে শিরোপা জয় করে। দলটি ফিফা কনফেডারেশন কাপে অংশগ্রহণ করে ২বার ২০০১ ও ২০০৩ সালে যেখানে দলটি ২বারই শিরোপা ঘরে তোলে। ফ্রান্স দলটি ( ১৯৮৪ ) সালে অলেম্পিক এবং ১৯৮৫ সালে কনমেবল উয়েফা কাপ অফ চ্যাম্পিয়নশিপ জয় করে একবার। 

ফ্রান্স দলের বর্তমান অবস্থা

ডাক নাম: লেস ব্লিউস

ফুটবল সংঘ: ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন

হেড কোচ: ডিডিয়ার ডেসচ্যাম্পস

ক্যাপ্টেন: হুগো লরিস

সর্বোচ্চ ম্যাচ: হুগো লরিস ( ১৪২ )

সর্বোচ্চ গোলদাতা: অলিভিয়ে জিরু  ( ৫২ )

ফিফা কোড: FRA

ফিফা রেংকিং: ১৭৫৯.৭৮  ( চতুর্থ তম )

লাইন আপ: ৪-২-৩-১ ফরমেশন

ফিফা বিশ্বকাপে ফ্রান্সের স্কোয়াড

গোলরক্ষক: হুগো লরিস, আলফনসো আরিওলা, স্টিভ মান্দান্দা।

ডিফেন্ডার: লুকাস হার্নান্দেজ, থিও হার্নান্দেজ, অ্যাক্সেল দিসাসি, জুলস কুন্দে, ইব্রাহিমা কোনাতে, বেঞ্জামিন পাভার্দ, উইলিয়াম সালিবা, দায়ত উপেমেকানো, রাফায়েল ভারানে।

মিডফিল্ডার: এদুয়ার্দো কামাভিঙ্গা, ইউসুফ ফোফানা, মাত্তেও গুয়েন্দজি, আদ্রিয়ান র‍্যাবিওট, অউরিলিয়ে চুয়েমনি, জর্দান ভেরেতুত।

ফরোয়ার্ড: কিংসলে ক্যোমান, উসমান দেম্বেলে, অলিভিয়ের জিরুদ, আন্তোইনে গ্রিজমান, কিলিয়ান এমবাপ্পে, ক্রিস্টোফার এনকুনকু, মার্কাস থুরাম।

ফুটবলে ইংল্যান্ডের পরিসংখ্যান

১৯০৫ সাল থেকে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার সদস্য লাভ করা ইংল্যান্ড সর্বপ্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে ৩০শে নভেম্বার ১৮৭২ সালে স্কটল্যাডের বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচে স্কটল্যাডের সাথে ০-০ গোল ব্যাবধানে ড্রা করে দলটি।

ইংল্যান্ডের সবচেয়ে বড় জয় ১৮ই ফেব্রুয়ারি ১৮৮২ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩-০ গোল ব্যাবধানে। পক্ষান্তারে ইংল্যান্ডেফ সবচেয়ে বড় পরাজয় ২৩শে মে ১৯৫৪ সালে হাঙ্গেরির বিপক্ষে ১-৭ গোল ব্যাবধানে।

ফুটবলে পরিসংখ্যানে ইংল্যান্ডের যত অর্জন

ইংল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দল ফিফা বিশ্বকাপে প্রথম অংশগ্রহণ করে ১৯৫০ সালে। সর্বমোট ১৫বার ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করে সর্বোচ্চ সাফল্য ১৯৬৬ সালে চ্যাম্পিয়ান এবং ১৯৯০ ও ২০১৮ সালে চতুর্থ স্থান হওয়ার গৌরব অর্জন করে। ইংল্যান্ড ফিফা বিশ্বকাপের পরিসংখ্যানে সর্বমোট ম্যাচ খেলেছে ৬৯টি। যেখানে জয়লাভ করে ২৯টি ম্যাচে। জয়ের পরিমাণ ৪২.০২%। পরাজিত হয়েছে ১৯টি ম্যাচে। পরাজয়ের পরিমাণ ২৭.৫৪%। এই ৬৯টি ম্যাচের মধ্যে ড্রা হয়েছে ২১টি ম্যাচে। ড্রার পরিমাণ ৩০.৪৪%।

ইংল্যান্ড দলটির আরো কৃতিত্ব রয়েছে উয়েফা ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়ানশিপে। ইংল্যান্ড সর্বপ্রথম উয়েফা ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়ানশিপে অংশগ্রহণ করে ১৯৬৮ সালে। এখনও পর্যন্ত ১০বার অংশগ্রহণ করে সর্বোচ্চ সাফল্য ১৯৬৮ ও ১৯৯৬ সালে তৃতীয় স্থান হওয়া।

এছাড়া দলটি উয়েফা নেশানস লীগে অংশগ্রহণ করে ২বার। সেখানেও তাদের রয়েছে সাফল্যের প্রতিচ্ছবি অর্থাৎ ২০১৯ সালে তৃতীয় স্থান।

 ইংল্যান্ড দলের বর্তমান অবস্থা

ডাক নাম: দ্য থ্রি লায়ন্স

ফুটবল সংঘ: দ্যা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন

হেড কোচ: গ্যারেথ সাউথগেট

ক্যাপ্টেন: হ্যারি কেন

সর্বোচ্চ ম্যাচ: পিটার শিল্টন  ( ১২৫ ম্যাচ )

সর্বোচ্চ গোলদাতা: অয়েন রুনি  ( ৫৩ )

ফিফা কোড: ENG

ফিফা রেংকিং: ১৭২৮.৪৭ ( পঞ্চম তম )

লাইন আপ: ৪-৩-৩ ফরমেশর

ফিফা বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের স্কোয়াড

গোলরক্ষক: জর্ডান পিকফোর্ড, নিক পোপ, অ্যারন রামসডালে।

ডিফেন্ডার: হ্যারি ম্যাগুয়ের, লিউক শ, এরিক ডায়ার, জন স্টোনস, কাইন ওয়াকার, কিরান ট্রিপিয়ার, কনোর কোডি, বেন হোয়াইট, ট্রেন্ট অ্যালেক্সজান্ডার-আর্নল্ড।

মিডফিল্ডার: জুডে বেলিংঘাম, মেসন মাউন্ট, কনোর গ্যালাঘার, ডেকলান রাইস, জর্ডান হ্যান্ডারসন, কেলভিন ফিলিপস।

ফরওয়ার্ড: জেমস ম্যাডিসন, ফিল ফোডেন, জ্যাক গ্রেলিস, হ্যারি কেন, বুকায়ো সাকা, রহিম স্টার্লিং, কালাম উইলসন, মার্কস র্যাশফোর্ড।

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড হেড টু হেড খেলা কবে?

ফ্রান্স বনাম ইংল্যান্ড হেড টু হেড কোয়াটার ফাইনাল এই ম্যাচটি বাংলাদেশ সমায়ে ১১ই ডিসেম্বার রোজ  রবিবার রাত ১ঃ০০ AM শুরু হবে।

3.8/5 - (9 votes)

Leave a Comment

error: You are not allowed to print preview this page, Thank you
×